1. multicare.net@gmail.com : নিউজ জনতার সময় :
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০২:১০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ভোলার চরফ্যাশনে বিয়ের নামে ১০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ।। চরফ্যাশনে রিকশা চালককে মারধর করে ফাঁকা স্টাম্পে স্বাক্ষর নিলেন ইউপি সদস্য চরফ্যাশনে চরমানিকায় জেলে চাল বিতরণ অনিয়ম।। ভোলার চরফ্যাশন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল ভোলার চরফ্যাশনে মেঘনা নদীর ঢালের মাটি কাটায় অর্থদন্ড।। “প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা” সামিয়া রহমান পুষ্পের শুভ জন্ম দিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন চরফ্যাশন প্রেসক্লাব।। ভোলার চরফ্যাশনে জুস তৈরির কারখানার সন্ধান মালিক আয়াতুল্লাহ জেলে।। ঢালচরের ভূমিদস্যু কালাম বাহিনীর তান্ডবে দিশেহারা অসহায় ভুমিহীনরা।। তুচ্ছ ঘটনা কে কেন্দ্র করে নিরব, জলিল কে পিটিয়ে আহত করেন, জুয়েল ও শাহাবউদ্দিনহাওলাদর।।

চরফ্যাশনে ঘুর্ণিঝড় মিধিলির আঘাতে বেগম রহিমা ইসলাম বালিকা এতিমখানা অবস্থা।।

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: সোমবার, ২০ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৫২ বার পড়া হয়েছে

চরফ্যাশন উপজেলা প্রতিনিধি।।চরফ্যাশনে ঘুর্ণিঝড় মিধিলির আঘাতে বেগম রহিমা ইসলাম বালিকা এতিমখানা মাদ্রাসার টিন বাউন্ডারি সহ ঘরটি ভেঙ্গে পড়ে যায়।
চরফ্যাশনের হাজারীগন্জ ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডে বেগম রহিমা ইসলাম বালিকা এতিমখানা মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা সাবেক সফল উপমন্ত্রী ও যুব ক্রীড়া মন্ত্রনালয়ের সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপি, মাদ্রাসাটির পরিচালক মোঃ ইলিয়াস। ওই মাদ্রাসায় অনেক বালিকা এতিম ছাত্রী রয়েছেন। শতকরা ৮০ বাগ ছাত্রী রয়েছেন।এঅবস্থায় গত বৃহস্পতিবার রাতে ও শুক্রবার দিনবর অবিরাম বৃষ্টি ও ঘুর্ণিঝড় মিধিলির তান্ডবে মাদ্রাসার টিন বাউন্ডারি সহ ঘরটি সম্পুর্ন ভেঙ্গে যায়। এতে ওই পরিচালক বিপাকে পড়ে যায়।
এদিকে ব্যাংকের ঋণ অন্যদিকে বালিকা এতিমদের খরচ নিয়ে এখন বিপাকে পরেছেন মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা ইলিয়াস । ক্ষতিগ্রস্থ্য মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা ইলিয়াস জানান, এ বছরে অনেক বালিকা এতিমদের সংগ্রহ করেছি । পরিচর্যা, বাবুর্চি খরচ ও টিন বাউন্ডারি অনেক টাকা খরচ হয়েছে বলে জানান মাওলানা মোহাম্মদ ইলিয়াস।
এ অবস্থায় বন্যায় চারটি টিনের বাউন্ডারি ভেঙ্গে গেছে এখন দুরদশা। দুচিন্তায় ওই পরিচালক নাওয়া খাওয়া অনেকটা বন্ধ। এতে ১ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী বেগম রহিমা ইসলাম বালিকা এতিমখানা মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা ইলিয়াস জানালেন।মাদ্রাসার সভাপতি মাওলানা মোহাম্মদ সুলতান জানান, মাওলানা ইলিয়াস একজন ভালো শিক্ষক।টাকা দার নিয়ে নিয়ে ব্যাংক থেকে ঋণ এনে মাদ্রাসার বাউন্ডারি পরিচালিত করেন। বন্যায় ভেঙ্গে যাওয়ায় এখন কিভাবে বাউন্ডারির সরকারি করবে সেটা বিষয় তবে সরকারি কোন অনুদান পেলে খুবই ভালো হতো,তাই এনিয়ে উপজেলা প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করেন ।
উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার জানান,মিধিলার আঘাতে মাদ্রাসাটির বাউন্ডারি সহ অনেক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এটা আমি শুনেছি তবে সরকারি কোন বরাদ্দ আসলে সেটা আমরা ব্যাবস্হা করবো।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
Theme Customized BY LatestNews